মিরেরসরাই সদরে হক মার্কেটে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে হামলা ও ভাংচুর

নিউজফিড,চট্টগ্রাম :
আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মিরেরসরাই সদরের কাঁচা বাজার সংলগ্ন হক সুপার মার্কেটে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। সোমবার দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে মিরেরসরাই পৌর মেয়র গিয়াস উদ্দিনের নেতৃত্বে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী দোকানদাররা।

এ ব্যাপারে মার্কেট কর্তৃপক্ষ মিরেরসরাই থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেছে। কর্তৃপক্ষের অভিযোগ ১৫ অক্টোবর এ ব্যাপারে মিরেরসরাই থানায় মামলা করতে গেলে মামলা নেয়নি থানা।

স্থানীয়দের কাছে জানা যায়, হামলার আগে মার্কেটের সামনে মানববন্দনে অংশ নেন পৌর মেয়র গিয়াস উদ্দিন । পরে মানববন্দন থেকে গিয়ে হক মার্কেটে হামলা ও ভাংচুর করা হয় । এসময় মার্কেটের সিসিটিভি ভেঙ্গে নিয়ে যায় হামলাকারিরা। কম্পিটারের হার্ড ডিস্কও নিয়ে যায় হামলাকারিরা।
স্থানীয় সু্ত্র জানায়, এর আগে ১ অক্টোবর সন্ত্রাসী কায়দায় মার্কেটটির সিঁড়ি ও গ্রিল ভেঙ্গে ফেলার পরিপ্রেক্ষিতে পরের দিন
ভুক্তভোগী দোকানদাররা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমীনের কাছে স্মারনলিপি দেয়। এহেন ঘটনার প্রতিকার চেয়ে মালিক পক্ষ
স্থানীয় থানায় মামলা করতে গেলে, থানা মামলা না নিয়ে সাধারন ডায়েরী লিপিবদ্ধ করে। থানায় মামলা না নেয়ার কারনে আদালতের দারস্থ হন মার্কেটের মালিক পক্ষ। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্টেট অাদালত ৯ই অক্টোবর ১৪৭ ধারায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে।
নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকা অবস্থায় সোমবার (১৪ অক্টোবর) মার্কেটে পুনরায় হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এসময় হামলাকারীরা মার্কেটে কেয়ারটেকার মিলনকে বেদড়ক পিটুনি দেয়। হামলার সময় মার্কেটের সিসিটিভি ক্যামেরা ভেঙ্গে নিয়ে যায়। এবং দোকানদারকে প্রাণনাশের হুমকি দেয় হামলাকারিরা।
হামলার সময় হামলাকারিরা মার্কেটের দুটি টিভি ভাংচুর করে এবং স্থানীয় দোকানদারদের মোবাইল ফোন নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করেন ঐ মার্কেটের দোকান মালিক নুর আলম।
জানতে চাইলে মিরেরসরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহিদুল কবির জানান, হক মার্কেটে সামনে স্থানীয় পৌরসভার কাঁচা বাজার অবস্থিত। এখানে পৌরসভা নতুন মার্কেট তৈরির পরিকল্পনা নিয়েছে। এই কাঁচাবাজার ও পাশ্ববর্তি হক মার্কেটের চলাচলের রাস্তার দ্বন্দের কারনে গতকালের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। তিনি আরো জানান হক মার্কেটের উপর আদালতের নিষেধাঙ্গা জারী রয়েছে।
স্থানীয়রা জানায়, হক মার্কেটে অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ক্ষোভের সৃস্টি হয়েছে এলাকায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here