পরিচালক চেয়েছিলেন- আমার শরীরে যেন কোনও অন্তর্বাস না থাকে: কঙ্গনা

বিনোদন ডেস্ক

রাখঢাক না রেখে একটু স্পষ্টভাষায় কথা বলতেই পছন্দ করেন বলিউড ‘কুইন’ কঙ্গনা রানাওয়াত। বলার কথাটি বলতে কখনও ভীত হন না কিংবা সংকোচ বোধ করেন না। এজন্য বলিউডে সবাই তার ব্যাপারে সতর্ক থাকে। কখন কার কোন কথা ফাঁস করে দেন, এই ভয়েও থাকেন বি-টাউনের নামিদামি তারকা, পরিচালক, প্রযোজকরা।

বলিউড সেন্সর বোর্ডের ‘সংস্কারি’ চেয়ারম্যান হিসেবে আলোচিত পহেলাজ নিহালানি একটা সময় ছবিতে সামান্য উষ্ণতা ছড়ানো দৃশ্যও গ্রহণ করতেন না। সোজা করাত চালাতেন সেই দৃশ্যের বুকের ওপর। কিন্তু কঙ্গনা সেই নিহালানির বিরুদ্ধে যে অভিযোগ এনেছেন তা শুনলে চোখ কপালে না উঠার উপায় নেই।

২০০৬ সালে ‘গ্যাংস্টার’ ছবির মধ্য দিয়ে বলিউডে ক্যারিয়ার শুরু করা কঙ্গনাকে এর পর আর কখনও পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সেন্সর বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান নিহালানি সম্পর্কে কথা বলে সবাইকে চমকে দেন কঙ্গনা। নায়িকা বলেন, ‘নিহালানি আমাকে ‘আই লাভ ইউ বস’ ছবিতে কাজ করার প্রস্তাব দেন। ওই ছবির ফটোশ্যুটের জন্য তিনি আমাকে বলেছিলেন শরীরে যেন কোনও রকম অন্তর্বাস রাখা না হয়। অন্তর্বাস ছাড়াই ট্রান্সপারেন্ট পোশাক পরতে বাধ্য করা হয়েছিল আমাকে। বিষয়টি বুঝতে পেরে আমি ছবিটির কাজ ছেড়ে দিয়েছিলাম।’

ছবির গল্পটিকে পর্নোগ্রাফির মতো মনে হয়েছিল জানিয়ে কঙ্গনা বলেন, ‘অফিসের মধ্যবয়সী বসের সঙ্গে উঠতি যুবতীর প্রেমের গল্প ছবিটিতে। যা আমাকে বিব্রত করেছিল। আমি অভিনয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করি। যদিও পরিচালকের চাপে এক প্রকার বাধ্য হয়েই অন্তর্বাস ছাড়া ফটোশ্যুট করতে হয়েছিলাম আমি।’

ছবিটির নির্মাতা ও কলাকুশলীদের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রাখতে এক পর্যায়ে কঙ্গনা তার ফোন নম্বরও বদলে ফেলেছিলেন বলে জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here